Home / মিডিয়া নিউজ / হিরো আলম নিজেই একটা বিপ্লব বা আন্দোলন, অভিমত ব্রাত্য রাইসুর

হিরো আলম নিজেই একটা বিপ্লব বা আন্দোলন, অভিমত ব্রাত্য রাইসুর

হিরো আলম সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ পরিচিত মুখ। শুধু পরিচিতই নন, তিনি দেশের শোবিজেও খুব

আলোচিত নাম। হিরো আলম মানে আলোচনা-সমালোচনা। এসবকে তোয়াক্কা না করেই তিনি এগিয়ে চলছেন নিজের মতো করে।

কোথায় থামতে হবে, কোথায় নামতে হবে এসব বিষয়কে মাথায়ই নেন না এই সোশ্যাল মিডিয়ার আলোচিত ব্যক্তি।

হিরো আলমকে নিয়ে অনেকেই কথা বলেন। এবার হিরো আলমকে নিয়ে অভিমত প্রকাশ করেছেন ‘লেখক ও চিত্রশিল্পী

ও সমালোচক ও কবি ও সাক্ষাৎকার গ্রহণকারী’ ব্রাত্য রাইসু। নিজের ফেসবুকে হিরো আলমের নারী সাজের ছবি পোস্ট করে ব্রাত্য রাইসু লিখেছেন, ‘আমি সিরিয়াসলিই বলতেছি, হিরো আলম ভাইয়ের আর কিছু করতে হবে না। উনি নিজেই একটা বিপ্লব বা আন্দোলন। ’

সম্প্রতি হিরো আলম মজে আছেন গানে। একের পর এক গান গাইছেন। আর আলোচনায়ও থাকছেন সেভাবেই। তবে হিন্দি গান গেয়ে বেশ তোপের মুখে পড়েন আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। ‘বাবু খাইছো’ নামের একটি গান গেয়ে গায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন হিরো আলম। এক শ্রেণির নেটিজেন অবশ্য হিরো আলমকে ছেড়ে দেননি। একের পর এক সমালোচনার তীরে বিদ্ধ করেছেন তাঁকে।

বগুড়ার প্রত্যন্ত এরুলিয়া গ্রামে একসময় সিডি বিক্রি করতেন আলম। সিডি যখন চলছিল না, তখন তিনি কেবল ব্যবসা শুরু করেন। কেবল সংযোগের ব্যবসার সুবাদে গানের ভিডিও তৈরি করতে শুরু করেন তিনি। ইউটিউবে প্রায় ৫০০ মিউজিক ভিডিও প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ গণমাধ্যমে আলোচনায় আসেন হিরো আলম।

ইউটিউবে হিরো আলমের এসব ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে তাঁর ভিডিও নিয়ে কৌতুক শুরু হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় তাঁর ভিডিও নিয়ে হয় ট্রল। এরপর তিনি শুরু করেন সিনেমা প্রযোজনা ও অভিনয়। গত নির্বাচনে নিজ এলাকা থেকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীও হয়েছিলেন আলম। সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে দেশের বিভিন্ন টেলিভিশনের টক শোতে কথা বলার সুযোগ পান। এভাবেই নানা কারণে তিনি আলোচনায় রয়েই যাচ্ছেন।

Check Also

মেয়ের ভবিষ্যৎ নিয়ে মুখ খুললেন মিথিলা

তাহসানের সঙ্গে ১১ বছরের সংসার জীবনের সমাপ্তি ঘটানোর পর কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে গাঁটছড়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published.