Home / মিডিয়া নিউজ / জিৎ যেভাবে নায়ক, হলেন সুপারস্টার

জিৎ যেভাবে নায়ক, হলেন সুপারস্টার

কলকাতার বাংলা চ্যানেলগুলোতে চলছে ‘বচ্চন’ ছবির ট্রেলার, গান ও নানা ধরনের প্রচারণা।

এ ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন টালিউড সুপারস্টার জিতেন্দ্র মদনানী (জিৎ)।

যার নামেই ছবি হিট হয়। কিন্তু এক দিনেই তিনি আজকের জিৎ হয়ে উঠেননি। আসুন তার স্টার হওয়ার গল্প জেনে নিই।

প্রথমে নিউ আলিপুরের সেন্ট জোসেফ অ্যান্ড মারি স্কুল ও পরে ন্যাশনাল হাই স্কুলে পড়াশোনা করেন জিৎ। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পরিচালিত ভবানীপুর এডুকেশন

সোসাইটি কলেজ থেকে স্নাতক পাস করে পারিবারিক ব্যবসায় যোগ দেন। তবে সৃজনশীল কাজের প্রতি তার বরাবরই উৎসাহ ছিল। মাঝে মধ্যে তিনি বিখ্যাত অভিনেতাদের অভিনয় অনুকরণের চেষ্টা করতেন। তার এ প্রতিভা দেখে বন্ধু রাজেশ চৌধুরী সৃজনশীল দুনিয়ায় ভাগ্য পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন।

বন্ধুর পরামর্শ কাজেও লাগে জিতের। এরপর তাকে দেখা যায় বিভিন্ন সিরিয়ালে। বিষবৃক্ষ, জননীসহ আরও কিছু সিরিয়ালে অভিনয় করেন। এরপর রূপালী শহর মুম্বাই যান এবং বলিউডে ক্যারিয়ার গড়ার উদ্দেশ্যে পাঁচ বছর সেখানে কাটান। কিন্তু কোনোভাবেই সুযোগের দেখা মিলছিল না।

এরই ফাঁকে ছুটিতে কলকাতায় আসেন এবং বিভিন্ন পরিচালক ও প্রযোজকদের সঙ্গে দেখা করেন। এরপর তিনি প্রসেনিয়াম আর্ট সেন্টারের সঙ্গে যুক্ত হন। এর অধীনে বেশ কিছু ইংরেজি নাটকে অভিনয় করেন, উল্লেখযোগ্য হলো আর্মস অ্যান্ড দ্য ম্যান ও ম্যান অ্যাট দ্য ফ্লোর। তারপর আবারও মুম্বাই উড়াল। শেষমেশ এক তেলেগু ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে যান। ২০০১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটির নাম ছিল চাঁদু, কিন্তু ছবিটি জিতের ক্যারিয়ারে চাঁদের হাসি ফুটাতে ব্যর্থ হয়।

২০০১ সালের অক্টোবরে তিনি আবার কলকাতায় আসেন এবং পরিচালক হরনাথ চক্রবর্তীর সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পান। তার কাছ থেকেই ২০০২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘সাথী’ ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পান। ছবিটির দৃশ্যায়ন শুরু হয় ওই বছরের ১৫ জানুয়ারি। ছবিটি রাতারাতি ঘুরিয়ে দেয় জিতের ভাগ্যের চাকা। তার সহজ-সাবলীল অভিনয়ের সকলের মনে দাগ কাটে। এরপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

প্রথমে রোমান্টিক চরিত্রে অভিনয় শুরু করলেও, ক্রমশ অ্যাকশন হিরো হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন জিৎ। ২০০৫ সালে থামস্‌ আপের বিজ্ঞাপন তার পরিচিতি আরও বাড়িয়ে দেয়।

২০১২ সালে ‘১০০% লাভ’ ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজনাও করেন। যা তার ক্যারিয়ারে সফল প্রযোজকের পালক লাগিয়ে দেয়। পরের ছবি ‘আওয়ারা’ পুরনো অনেক রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড গড়ে। শ্রাবন্তীর বিপরীতে ‘দিওয়ানা’ ও শুভশ্রী গাঙ্গুলীর বিপরীতে অভিনীত ‘বস’ হিট করে।

২০০২ সালে প্রিয়াঙ্কা ত্রিবেদীর বিপরীতে ’সাথী’ ছবিতে অভিনয় জীবন শুরু করে ইতোমধ্যে অর্ধশতাধিক ছবি করে ফেলেছেন এ নায়ক। পেয়েছেন একাধিক পুরস্কারও। এবারের দুর্গাপূজায় মুক্তি পাবে জিতের নতুন ছবি ‘বচ্চন’।

জিৎ ২০১১ সালের ২৪ জানুয়ারি স্কুলশিক্ষক মোহনা রতলানীকে বিয়ে করেন। পরের বছরের ১২ ডিসেম্বর তাদের একটি মেয়ে হয়। মেয়ের নাম নবন্যা।

Check Also

চিত্রনায়ক রুবেলের কাছে পপি ‘স্পেশাল’!

ঢাকাই ছবিতে মার্শাল আর্ট ব্যবহার যার মাধ্যমে সেই চিত্রনায়ক রুবেল বাংলা ছবির দর্শকদের অনেক জনপ্রিয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.